ডাক্তার না হয়েও ডাক্তার, প্রতারণার শীর্ষে পদ্মা মেমোরিয়াল হসপিটালের কর্নধার অনিক ভূয়া।


প্রকাশের সময় : অক্টোবর ২৭, ২০২২, ৭:৫০ অপরাহ্ন / ২৯২
ডাক্তার না হয়েও ডাক্তার, প্রতারণার শীর্ষে পদ্মা মেমোরিয়াল হসপিটালের কর্নধার অনিক ভূয়া।

ডাক্তার না হয়েও ডাক্তার, প্রতারণার শীর্ষে পদ্মা মেমোরিয়াল হসপিটালের কর্নধার অনিক ভূয়া।
নিজস্ব প্রতিনিধি –
মাদারীপুর জেলাধীন রাজৈর উপজেলার অন্তর্গত টেকেরহাটে অবস্থিত পদ্মা মেমোরিয়াল হসপিটালের
কর্নধার অনিক ভূয়া ডাক্তার না হয়েও নিজেকে ডাক্তার হিসেবে পরিচয় দিয়ে এখন তিনি প্রতারণার শির্ষে অবস্থান করছেন।তথ্য সূত্রে জানা যায় তিনি মোটা অঙ্কের ফি নিয়ে
রোগী দেখার নামে প্রতারণা করছেন সাধারণ মানুষের সাথে।আবার রীতিমতো মাদক সেবনও করেণ তিনি।  কিন্তু দেখার কেউ নেই। প্রতারণার স্বীকার হলেও তার বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছেনা প্রাণ ভয়ে।
কেউ কোন কথা তুললে তিনি নিজেকে গোপালগঞ্জ জেলা
মৎস্যজীবি লিগের সাধারণ সম্পাদক পরিচয় দিয়ে রিতীমত হুমকি ধামকির মাধ্যমে ভুক্ত ভূগীর মুখ বন্ধ করার চেষ্টা করে। এমনকি প্রশাসনকে কিংবা গণমাধ্যমকে ম্যানেজ করেই সবকিছু করেন বলে তিনি উল্লেখ করেন।
তিনি আরও বলেন যে তার বিরুদ্ধে কেউ কিছু বলার কিংবা কিছু করার ক্ষমতা কারো নেই। তার এধরণের ঔদ্ধত্যপুর্ন কথার মাধ্যমে বোঝা যায় তিনি প্রকৃত পক্ষে একজন প্রতারক।আবার প্রশাসন কিংবা গণমাধ্যমকে নিয়ে যে  কথা তিনি বলেছেন তাতে রীতিমতো উভয় সংস্থাকে দাড় করিয়েছে কাঠগড়ায়। কিন্তু তারপরেও টনক নড়ছেনা কারো।গত ০১/১০/২০২২ ইং তারিখে তার বিরুদ্ধে সাবিনা বেগম নামক একজন ভুক্তভূগী রাজৈর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর একটি দরখাস্তও করেণ।দরখাস্তে তিনি অসহায় মানুষেকে এই ভূয়া ডাক্তারের প্রতারণার হাত থেকে বাঁচানোর আকুতি জানান। না হয় ভবিষ্যতে যে কোন বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে। হতে পারে অসহায় মানুষের জীবন সংহার। তাই বড় ধরনের কোন বিপর্যয় এড়াতে
পদ্মা মেমোরিয়াল হসপিটালের কর্নধার অনিকের ভূয়ার বিরুদ্ধে সুষ্ঠু তদন্ত পুর্বক আইনি ব্যাবস্থা নিতে ভুক্তভূগীরা প্রশাসনের প্রতি আকুল  আবেদন জানাচ্ছে।