প্রকাশের সময় : অক্টোবর ২, ২০২২, ৯:৪০ অপরাহ্ন / ৩৭০

জেএসডি’র  প্রেস বিজ্ঞপ্তি -০২ সেপ্টেম্বর ২০২২
জেএসডি স্থায়ী কমিটির সভা:
১০ ডিসেম্বর শনিবার কেন্দ্রীয় কাউন্সিল।

রাষ্ট্র সংস্কার ও রূপান্তরে
‘দ্বিতীয় মুক্তিযুদ্ধ’ অনিবার্য
………আ স ম রব

স্বাধীনতার পতাকা উত্তোলক আ স ম আবদুর রব বলেছেন, বিদ্যমান অনির্বাচিত অগণতান্ত্রিক সরকারের পতন, অমানবিক নিপীড়নমূলক রাষ্ট্রব্যবস্থার উচ্ছেদ, সংবিধান সংস্কার ও রাষ্ট্র রূপান্তরের প্রশ্নে ‘দ্বিতীয় মুক্তিযুদ্ধ’ অনিবার্য হয়ে পড়েছে।

৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে আমরা ভৌগলিক স্বাধীনতা পেয়েছি। এবার জনগণের আকাঙ্খাভিত্তিক বাংলাদেশ বিনির্মাণের লড়াইয়ের রূপ হবে গণ আন্দোলন, গণজাগরণ এবং গণঅভ্যুত্থানমূলক। বাংলাদেশের ভূ-রাজনৈতিক অবস্থান, আঞ্চলিক ও ভূরাজনীতি এবং অভ্যন্তরীণ রাজনীতির বন্ধ্যাত্ব এবং সীমাবদ্ধতাকে গভীরভাবে পর্যালোচনা করতে না পারলে, বাংলাদেশের অখণ্ডতা চরম ঝুঁকিতে পড়বে।

সুতরাং বাংলাদেশের সার্বভৌমত্ব এবং অখন্ডতার স্বার্থে ‘দ্বিতীয় মুক্তিযুদ্ধ’ হবে একমাত্র রক্ষাকবচ। দ্বিতীয় মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম নিয়ামক শক্তি হবে জেএসডি।
আজ জেএসডির স্থায়ী কমিটির সভায় আ স ম আবদুর রব উপরোক্ত বক্তব্য প্রদান করেন।

উত্তরাস্থ বাসভবনে অনুষ্ঠিত স্থায়ী কমিটির সভায় আগামী ১০ ডিসেম্বর জেএসডির কেন্দ্রীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠানের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।
উল্লেখ্য,তানিয়া রবকে আহ্বায়ক, শহীদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপনকে সদস্যসচিব করে ১০১সদস্য বিশিষ্ট কেন্দ্রীয় কাউন্সিল’২২ প্রস্তুতি কমিটি গঠন করা হয়।

কাউন্সিলের লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে স্বৈরাচারী সরকারের পতন, রাষ্ট্র সংস্কার ও রূপান্তরে ‘দ্বিতীয় মুক্তিযুদ্ধের’ ডাক।

সভায় স্থায়ী কমিটির সদস্য এডভোকেট ছানোয়ার হোসেন তালুকদার, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ সিরাজ মিয়া, তানিয়া রব এবং শহীদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপন বক্তব্য রাখেন।

বার্তা প্রেরক
ইঞ্জিনিয়ার মোঃ আবুল মোবারক
দপ্তর সম্পাদক