“সৈয়দপুরে রেলওয়ের ২০ একর জমি উদ্ধার”


প্রকাশের সময় : অক্টোবর ১৯, ২০২২, ৩:১৩ অপরাহ্ন / ৬৬১
“সৈয়দপুরে রেলওয়ের ২০ একর জমি উদ্ধার”
“সৈয়দপুরে রেলওয়ের ২০ একর জমি উদ্ধার”
রউফুল আলম, ব্যুরো চীফ, রংপুরঃ
গত ১২/১০/২২ইং রোজ বুধবার সকাল ১০টা থেকে বেলা সাড়ে ৩টা পর্যন্ত এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। নীলফামারীর সৈয়দপুরের রেলওয়ের বিভিন্ন এলাকায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে অভিযান পরিচালনা করেছেন রেলওয়ের ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল সকাল ১০টা থেকে বেলা সাড়ে ৩টা পর্যন্ত এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এতে অবৈধভাবে দখলকৃত রেলওয়ের ২০ একর জমি উদ্ধার করা হয়েছে। এই জমির লাইসেন্স ধারী ব্যাক্তিদের কে  জমি  উদ্ধার  করে দেওয়া হয়েছে।
অভিযানে অবৈধভাবে রেলওয়ের জমি বেদখল করে পাকা অবকাঠোমো তৈরির দায়ে দখলদারদের কাছ থেকে ৮৭ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চল রাজশাহীর ভুসম্পত্তি কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. নুরুজ্জামান।
অভিযান চালিয়ে অবৈধভাবে দখলকৃত রেলওয়ের ২০ একর জমি উদ্ধার করা হয়েছে।  রেলওয়ে সূত্রে জানা যায়, শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কের বাঙ্গালীপুর এলাকায় বিসিক শিল্পনগরীর সামনের আলোচিত শেখ সাদ কমপ্লেক্সসহ আশপাশের প্রায় ২০ একর জমি উদ্ধার করে সীমানা নির্ধারণী লাল পতাকা স্থাপন করা হয়। এ সময় ওই কমপ্লেক্সে তালা লাগিয়ে দেওয়া হয়। সিলগালা করা হয় রেলওয়ে কোয়ার্টার ভেঙে গড়ে তোলা একই রোডের আকতার মটরস ও শহরের মুন্সিপাড়া এলাকার সাইফুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তির বহুতল ভবন।
রেলের এসব জায়গা দখল করে ঘরববাড়ি নির্মাণ করা হয়। ৫ থেকে ২০ বছর ধরে এসব স্থাপনা গড়ে উঠেছে। অভিযানে অবৈধ দখলদার সাইফুল ইসলামকে ১০ হাজার, সাইদুর রহমানকে ১১ হাজার ৫০০ টাকা, মাহবুবুর রহমানের, আখতার হোসেন ও শহিদুল ইসলামের ১৫ হাজার করে, ওয়ালটন শোরুমের ৫০ হাজার এবং মুন্সিপাড়ায় সরকারী কাজে বাধা দেওয়ায় আনিছুর রহমানের ১ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।
অভিযানে অন্যান্যদের মধ্যে ছিলেন, সৈয়দপুর রেলওয়ের নির্বাহী প্রকৌশলী (কারখানা) আহসান উদ্দিন, ভূসম্পত্তি রক্ষনাবেক্ষন অফিসের সহকারী প্রকৌশলী (আই ও ডাব্লিউ) আশরাফুল ইসলাম ও পার্বতীপুর ফিল্ড কানুনগো অফিসের কানুনগো জিয়াউল হক। তাদের সহযোগীতা করেন সৈয়দপুর থানা পুলিশ ও রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর (আরএনবি) রিজার্ভ ফোর্স।
মোঃ রউফুল আলম
০১৭৭৪৪০৭৬৬৬
তারিখঃ১৮/১০/২২