সুন্দরবনে ১০ জেলেকে অপহরণ করেছে অজ্ঞাত একটি ডাকত দল।


প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ২০, ২০২২, ৬:৪১ অপরাহ্ন / ৫৮৮
সুন্দরবনে ১০ জেলেকে অপহরণ করেছে অজ্ঞাত একটি ডাকত দল।
সুন্দরবনে ১০ জেলেকে অপহরণ করেছে অজ্ঞাত একটি ডাকত দল।
মোঃ শামীম হোসেন- খুলনা –
দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পরে সুন্দরবনে আবােও ডাকাত দলের তৎপরতা শুরু হয়েছে। গত ১৫ ডিসেম্বর মুক্তিপণের দাবিতে ১০ জেলেকে অপহৃরণ করেছে অজ্ঞাত একটি ডাকত দল। এসময় জেলেদের কাছ থেকে প্রায় ৭ মন কাকড়া, ২০টি মোবাইল ফোন ও দুটি জেলে নৌকা নিয়ে যায় তারা। শনিবার রাতে (১৭ ডিসেম্বর) অপর জেলেরা বাড়ি ফিরে আসলে এ খবর জানা যায়। ডাকাতদের হামলার ভয়ে নাম প্রকাশ না করার শর্তে ফিরে আসা জেলেরা জানান, পূর্ব সুন্দরবনের চাঁদপাই, জিউধারা ও ধানসাগর স্টেশন থেকে পারমিট নিয়ে বনের বেড়ির খাল এবং অরমাল খালে রাতে ৮-১০টি নৌকায় কাকড়া শিকার করছিলেন তারা। এসময় নয়জনের একটি ডাকাত দল আগ্নেআস্ত্র নিয়ে তাদের উপর হামলা চালায়। ডাকাত দল জেলেদের কাছে থাকা মোবাইল ফোন, নগদ টাকা ও তাদের শিকার করা কাকড়াসহ দুইটি নৌকা ছিনিয়ে নেয়। এরপর মাথাপিছু ১০ হাজার টাকা মুক্তিপণের দাবিতে ১০জন জেলেকে অপহরণ করে নিয়ে যায় তারা। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে টাকা নিয়ে যোগাযোগ না করলে অপহৃত জেলেদের হত্যা করা হবে বলে ডাকাতরা হুমকি দেয়। এ ব্যপারে বন বিভাগের ধানসাগর স্টেশন কর্মকর্তা আব্দুস ছবুর বলেন, জেলেদের মাধ্যমে আমরা ডাকাতির খবর জেনেছেন। চাঁদপাই রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, ডাকাতির বিষয়টি খোঁজ খবর নিয়ে ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।
খুলনার দাকোপে ১৬ দলীয় ইউনিয়ন কাপক্রিকেট টুর্ণামেন্টের শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে।
মোঃ শামীম হোসেন – খুলনা –
খুলনার দাকোপে তিলডাঙ্গা ইউনিয়ন ক্রিকেট কাউন্সিল কর্তৃক আয়োজিত ১৬  দলীয় ক্রিকেট টুর্নামেন্ট এর শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে। ১৯ ডিসেম্বর সোমবার সকল সাড়ে ১০ টায় বটবুনিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে তিলডাংগা ইউনিয়ন কাউন্সিলের আয়োজনে মনমোহন মন্ডলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ১৬ দলীয় টুর্ণামেন্টের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দাকোপ উপজেলা নির্বাহীঅফিসার মিন্টু বিশ্বাস। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাক ডাঃ মৃনাল কান্তি সানা। সন্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বটবুনিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি মনোজিত রায়, প্রধান শিক্ষক স্বপন কুমার মহালদার, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গাজী জালাল উদ্দীনসহ এলাকার সুধী জন ও ছাত্র ছাত্রী বৃন্দ।