সিলেটে শেষ হলো তিনদিনব্যপী সারেগ আবাসন মেলা। আবাসন মানুষের সারা জীবনেরস্বপ্ন ॥


প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারী ২৭, ২০২৩, ৮:৫৮ অপরাহ্ন / ৩৪৪
সিলেটে শেষ হলো তিনদিনব্যপী সারেগ আবাসন মেলা। আবাসন মানুষের সারা জীবনেরস্বপ্ন ॥

সিলেটে শেষ হলো তিনদিনব্যপী সারেগ আবাসন মেলা। আবাসন মানুষের সারা জীবনেরস্বপ্ন ॥

মাহি উদ্দিন সেলিম –

শেষ হলো সিলেট অ্যাপার্টমেন্ট এন্ড রিয়েল এস্টেট গ্রুপ (সারেগ) আয়োজিত তিনদিনব্যাপী
আবাসন মেলা। গতকাল শনিবার রাতে সমাপনী অনুষ্ঠানের মধ্য শেষ হয় এ মেলা। সিলেট জেলা
স্টেডিয়াম সংলগ্ন মোহাম্মদ আলী জিমনেশিয়ামে বৃহস্পতিবার বিকেলে তিনদিনব্যাপী এ
মেলার উদ্বোধন হয়।
মেলার সমাপনী উপলক্ষে আলোচনা সভা, সম্মানা প্রদান ও পুরস্কার বিতরণীর অনুষ্ঠানের আয়োজন
করা হয়। সারেগ চেয়ারম্যান মাওলানা খায়রুল হোসেনের সভাপতিত্বে সমাপনী অনুষ্ঠানে-অতিথি
হিসেবে বক্তব্য রাখেন- জেলা ক্রীড়া সংস্থার (ডিএসএ) সাধারণ সম্পাদক মাহি উদ্দিন আহমদ
সেলিম , মেট্রোপলিটন চেম্বারের সাবেক সভাপতি হাসিন আহমদ, মেট্রোপলিটন চেম্বারের
পরিচালক ও সারেগ-এর সাবেক সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ মুনতাসির আলী। স্বাগত বক্তব্য রাখেন,
সারেগ সাধারণ সম্পাদক সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ দিলওয়ার হোসাইন। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত
ছিলেন, মাওলানা নেহাল আহমেদ, মাওলানা তাজুল ইসলাম, শাহ আশিকুর রহমান, হুরায়রা ইফফাত
হোসেন প্রমুখ।
ডিএসএ সাধারণ সম্পাদক মাহি উদ্দিন আহমদ সেলিম বলেন, আবাসন মানুষের সারা জীবনের
স্বপ্ন। সিলেটের আবাসন ব্যবসায়ীরা মানুষের এই স্বপ্ন পূরণেরই চেষ্টা চালাচ্ছেন। মেলার
মাধ্যমে ক্রেতাদের মধ্যে যে উৎসাহ-উদ্দীপনার সৃষ্টি হয়েছে সেটা ধরে রাখতে হবে।
মুহাম্মদ মুনতাসির আলী বলেন, কোভিড পরবর্তী রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে পুরো বিশ্বের
অর্থনীতি অনেকটা চাপে রয়েছে। বাংলাদেশও এর বাইরে নেই। এরপরও মেলায় ক্রেতাদের উপস্থিতি
উৎসাহব্যঞ্জক। আমরা ক্রেতাদের আস্থা ধরে রাখতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।
সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রকাশিত স্মারকের প্রকাশনা ও র‌্যাফেল ড্র অনুষ্ঠিত হয়। মেলায় অংশ নেওয়া
১৫টি প্রতিষ্ঠানকে সম্মানা ক্রেষ্ট প্রদান করা হয়।
সারেগ সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ দিলওয়ার হোসাইন জানান, তিনদিনব্যাপী মেলায় তারা
গ্রাহকদের ব্যাপক সাড়া পেয়েছেন। প্রচার-প্রচারণার কারণে দেশের বাইরে থেকেও অনেক ক্রেতা
প্লট-ফ্ল্যাট ক্রয়ের আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। মেলায় অংশগ্রহণকারী স্টলসমূহে অনেক কাস্টমারই
তাদের নাম তালিকাভুক্ত করেছেন। তিনি বলেন, আবাসন শিল্পে ক্রেতা-বিক্রেতার মধ্যে যে
সমন্বয়হীনতা ছিল, মেলার মাধ্যমে তা অনেকটাই দূর হয়েছে। এর মাধ্যমে দেশে-বিদেশে প্লট-
ফ্ল্যাটের নতুন গ্রাহক তৈরী হবে। বিদ্যমান অর্থনৈতিক পরিস্থিতির মধ্যেও মেলা অনেকটাই
সফল বলে তার দাবি।
প্রসঙ্গত, মেলায় আর্ক রিয়েল এস্টেট প্রাইভেট লিমিটেড, আপন এসোসিয়েটস, হলি আরবান
প্রপার্টিজ লিমিটেড, হিলসাইড অ্যাপার্টমেন্টস লিমিটেড, হিলভিউ, আল ফালাহ,
ড্রিমল্যান্ড প্রপার্টিজ, সিলকো হোমস, সাকের অটো ব্রিকস, আহমদ ডোর, মেট্রো
এসোসিয়েটস এবং এশিয়ান পেইন্টস অংশ নেয়।
মুহাম্মদ দিলওয়ার হোসাইন
সাধারণ সম্পাদক
সারেগ সম্পাদক
০১৭১৫-৫৭৪৫০৭

জেলা প্রশাসন বিআরটিএ সিলেটের সচেতনতামূলক র‌্যালি সড়ক দুর্ঘটনা রোধে চালক, হেলপার ও পথচারীদের সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে।

সিলেট জেলা প্রশাসন ও বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কতৃপক্ষ (বিআরটিএ)
সিলেটের উদ্যোগে সড়ক দুর্ঘটনা রোধে সচেতনতামূলক এক র‌্যালি
নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন করেছে। র‌্যালি থেকে জনসাধারণের মাঝে
সড়ক দুর্ঘটনা সংক্রান্ত প্রচারপত্র বিতরণ করা হয়। রোববার দুপুরে এই
র‌্যালি বের করা হয়।
বিআরটিএ সিলেট বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক
(ইঞ্জিনিয়ারিং) মোঃ শহিদুল আযমের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত র‌্যালি সিলেট
নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণকালে সিএনজি অটোরিকসা স্ট্যান্ড,
টাউন বাস সার্ভিস স্টপেজ সহ অন্যান্য পয়েন্টে গাড়ি চালক, যাত্রী
সাধারণ ও জনসাধারণের মাঝে এই প্রচারপত্র বিতরণ করা হয়।
এসময় বিআরটিএ সিলেট বিভাগীয় কার্যালযের উপ-পরিচালক মোঃ
শহীদুল আযম বলেন, একটি দুর্ঘটনা সারা জীবনের কান্না। সড়ক
দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেতে চালক, যাত্রী, পথচারী সবাইকে ট্রাফিক
আইন মেনে চলতে হবে। তিনি বলেন সামান্য ভুলের জন্য যে কোন
মূহুর্তে ঘটে যেতে পারে ভয়াবহ দুর্ঘটনা। সে জন্য সড়ক দুর্ঘটনা
প্রতিরোধে সবাইকে অত্যন্ত সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে। মনে রাখতে হবে
সময়ের চেয়ে জীবনের মূল্য অনেক বেশি। তাই দেখে শুনে ও বুঝে
সবাইকে পথ চলতে হবে। তিনি বিশেষ করে যাত্রীদের নিরাপদ ভ্রমন নিশ্চিত
করতে চালক ও হেলপাদের ভূমিকা রাখার আহবান জানান।
র‌্যালিতে উপস্থিত ছিলেন বিআরটিএ সিলেটের সহকারী পরিচালক
রিয়াজুল ইসলাম ও প্রশাসন সহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ।