“সারিয়াকান্দিতে সভাপতি কর্তৃক মাদ্রাসার সুপার ও অধ্যক্ষেকে প্রাণনাশের হুমকি, শূন্য পদে ব্যক্তিগত প্রার্থী নিয়োগে সভাপতির সুপারিশ”


প্রকাশের সময় : অক্টোবর ১৯, ২০২২, ৩:১৭ অপরাহ্ন / ৩৩৮
“সারিয়াকান্দিতে সভাপতি কর্তৃক মাদ্রাসার সুপার ও অধ্যক্ষেকে প্রাণনাশের হুমকি, শূন্য পদে ব্যক্তিগত প্রার্থী নিয়োগে সভাপতির সুপারিশ”
“সারিয়াকান্দিতে সভাপতি কর্তৃক মাদ্রাসার সুপার ও অধ্যক্ষেকে প্রাণনাশের হুমকি, শূন্য পদে ব্যক্তিগত প্রার্থী নিয়োগে সভাপতির সুপারিশ”
আর.এ রাশেদ, সারিয়াকান্দি (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ
বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে নিজবলাইল ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার তিনটি শুন্য পদে নিয়োগ পরিক্ষায় উত্তীর্ণদের বাদ দিয়ে ঐ প্রতিষ্ঠানের সভাপতির ব্যক্তিগত প্রার্থীদের নিয়োগ দিতে উক্ত প্রতিষ্ঠানের সুপার রফিকুল ইসলাম কে উক্ত প্রতিষ্ঠানের সভাপতি সুলতান মাহমুদ রুবেল কর্তৃক হুমকি দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
এই বিষয়ে সারিয়াকান্দি থানা ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর পৃথক দুইটি  অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, নিজবলাইল ইসলামীয়া দাখিল মাদ্রাসায় তিনটি শুন্য পদে প্রার্থী নিয়োগের জন্য গত ০৯/০৯/২০২২ উপজেলা শিক্ষা অফিসার ও ডিজি’র প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে আয়া, নিরাপত্তা প্রহরী ও পরিচ্ছন্নতাকর্মী পদে ১৬ জন প্রার্থী  পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করেন। এ সময় মেধা তালিকায় তিন জন প্রথম স্থান অধিকার করে নির্বাচিত হয়ে ডিজি’র প্রতিনিধিগণের সুপারিশ প্রাপ্ত হন। পরে অত্র মাদ্রাসার সভাপতি সুলতান মাহমুদ রুবেল পরীক্ষায় কৃতকার্য প্রার্থীদের নিয়োগ বাতিল করে তার অকৃতকার্য প্রার্থীদের নিয়োগ দেওয়ার জন্য সুপারিশ করলে সভাপতিকে  মাদ্রাসার সুপার বিষয়টি ডিজি’র প্রতিনিধি গনকে জানাতে বলে। মাদ্রাসা সুপার জাহাঙ্গীর আলম গত ১০/০৯/২০২২ ইং তারিখে নিয়োগ সংক্রান্ত কাজে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসে গেলে তাহার অনুপস্থিতিতে সভাপতি সন্ত্রাস বাহিনী নিয়ে মাদ্রাসায় এসে সুপার কে উপস্থিত না পেয়ে অকথ্য ভাষায় গালাগালি  করে এবং অধ্যক্ষ কে প্রাণনাশের হুমকি ও মামলা দায়ের করবে বলে হুশিয়ারি দেয় এমন তথ্য অভিযোগে পাওয়া যায়। সেই সাথে তার প্রার্থীদের নিয়োগ দেওয়া না হলে তাকে চাকরী থেকে বহিস্কার করার হুমকি প্রদান করেন সভাপতি রুবেল। এ বিষয়ে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আমি নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছি। সভাপতি আমাকে বিপদে ফেলতে গোপনে আমার বিরুদ্ধে দুইটি কারন দর্শানোর নোটিশ করে। যাহা আমি শিক্ষা অফিস সুত্রে জানতে পারি।  আমি আইনের বাহিরে কাজ করিনি বলে প্রতিষ্ঠানের সভাপতি আমায় চাকরি করতে দিবে না মর্মে হুমকি দেয়। এছাড়াও মাদ্রাসার শিক্ষক হাজিরা খাতা নিয়ে গিয়ে প্রতিষ্ঠানের নিয়ম ভঙ্গ ও ক্ষমতার অপ ব্যবহার করেছেন। আমি নিরাপত্তার সাথে এর সুষ্ঠু বিচার চাই।
এই বিষয়ে অভিযুক্ত সভাপতি রুবেল গনমাধ্যম কে বলেন, উক্ত সুপারের বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতা সহ একাধিক অভিযোগ রয়েছে। তবে তার বিরুদ্ধে সব মিথ্যে অভিযোগ করা হয়েছে বলে তিনি জানান।
এ ব্যাপারে সারিয়াকান্দি উপজেলা নির্বাহী অফিসার রেজাউল করিম ও থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রাজেশ কুমার চক্রবর্তী বলেন, অভিযোগের বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।