সন্তান হত্যার মৃত্যু শোক না কাটতেই শেষ সম্বল ৩ গরু চুরি হয়েছে।


প্রকাশের সময় : জানুয়ারী ১, ২০২৩, ৪:২১ অপরাহ্ন / ৫২৪
সন্তান হত্যার মৃত্যু শোক না কাটতেই শেষ সম্বল ৩ গরু চুরি হয়েছে।
সন্তান হত্যার মৃত্যু শোক না কাটতেই শেষ সম্বল ৩ গরু চুরি হয়েছে।
শাহাবুদ্দিন মোড়ল ঝিকরগাছা, যশোরঃ
যশোরের ঝিকরগাছার বামনালী গ্রামে হতদরিদ্র দিনমজুরের ৩ টি গরু চুরি হয়েছে। শনিবার ভোরে গোয়ালঘর থেকে চোরেরা দেড় লক্ষাধিক টাকা মূল্যের গরু তিনটি নিয়ে গেছে। এক মাস আগে তার একমাত্র পুত্র সন্তানকে হত্যা করেছে অজ্ঞাত দূর্বৃত্তরা। পোস্টমর্টেম রিপোর্ট আসলে সেই মোতাবেক ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে পুলিশ জানিয়েছে।
শনিবার (৩১ ডিসেম্বর) সকালে ভুক্তভোগী বামনালী সায়েম পাড়ার শাহাজান মন্ডল (৫৮) জানান শনিবার ফজরের আজানের আগে গরুগুলো গোয়াল ঘরে দেখেছি। নামাজ আদায়ের পর গোয়াল থেকে গরু বের করতে গিয়ে দেখি গোয়ালঘরে একটি  গরুও নেই। চোরেরা চুরি করে নিয়ে গেছে। তিনি আরও বলেন, খেয়ে না খেয়ে গরু ৩ টা বড় করেছি। চুরি হওয়া বাছুর সহ ১ টা দুধালো গাভী এবং অন্য ১ টা গাভীর মূল্য ১ লাখ ৪০ হাজার টাকা হবে বলে তিনি জানান। শাহাজান মন্ডল একই গ্রামের মৃত হারেজ মন্ডলের ছেলে। তিনি দিনমজুরের কাজ করে অর্ধাহার অনাহারে কষ্টে সংসার চালান বলে জানিয়েছেন।
গত ৩০ নভেম্বর শাহাজানের ৩ কন্যা ও ১ পুত্র সন্তানের মধ্যে পুত্র রাহুলকে কে বা কারা হত্যা করে তার বাড়ির খাটের নীচে রেখেছিলো। সে রহস্য আজও উন্মোচন হয়নি। তবে অপরাধ বিশেষজ্ঞের ধারণা পূর্ব শক্রতার জেরে গরু চুরির সাথে সন্তান হত্যার যোগসূত্র থাকতে পারে।
৯ নং ওয়ার্ডের মেম্বার সামছুর রহমান জানান, ৩০ নভেম্বর শাহাজানের ছেলে রাহুলকে তার বাড়ির খাটের নীচে মৃত্যু অবস্থায় পাওয়া গিয়েছিল। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটনের চেষ্টা চালাচ্ছে। তার গরু চুরির ঘটনাটি দুঃখজনক।
ঝিকরগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ সুমন ভক্ত জানান রাহুল হত্যার বিষয়ে থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। পোস্টমর্টেমের রিপোর্ট এখনো আসেনি। রিপোর্ট অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে এ ব্যাপারে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী রহস্য উদঘাটনে তৎপর রয়েছে। গরু চুরির কোনো অভিযোগ পায়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে যথাযথ ব্যবস্হা নেওয়া হবে।
উল্লেখ্য গত ৩০ নভেম্বর সন্ধ্যায় বামনালি প্রাইমারীর ৫ম শ্রেণির ছাত্র রাহুলকে মৃত্যু অবস্থায় বাড়ীর খাটের নীচে পাওয়া গিয়েছিল। তখন থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছিল।
যশোরের বেনাপোল পোর্ট থানা আয়োজনে বিজয় দিবসের  আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।
আঃজলিল, স্টাফ রিপোর্টারঃ–
পুলিশ জনতাই,জনতাই পুলিশ এই স্লোগান কে সামনে রেখে যশোরের বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশের বিশেষ আয়োজনে মহান বিজয়২০২২ দিবসের আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত।
বেনাপোল পোর্ট থানা প্রাঙ্গণে ইং৩১/১২/২২ তাং শনিবার বিকাল ৪টার সময় পবিত্র কোরআন তেলোয়াতের মধ্যে আনুষ্ঠানিকতার মধ্যে দিয়ে শুরু হয়। এসময় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন যশোর ৮৫/১আসনের মাননীয় জাতীয় সংসদ আলহাজ্ব মোঃ শেখ আফিল উদ্দীন
বেনাপোল পোর্ট থানার অফিসার ইনচার্জ কামাল হোসেন ভূইয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন যশোরের পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ারদার বিপিএম (বার), পিপিএম, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল হক মন্জু,উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাঃ সম্পাদক অধ্যক্ষ ইব্রাহিম খলিল,নাভারণ সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার নিশাত আল নাহিয়ান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার নারায়ন চন্দ্র পাল,উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আলেয়া ফেরদৌস,বেনাপোল পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ইমামুল হক মুকুল, সাঃসম্পাদক মোঃ নাসির উদ্দিন,শার্শা উপজেলা আওয়ামী  যুবলীগের সভাপতি অহিদুজ্জামানন, সাধারণ সম্পাদক সোহারব হোসেন,উপজেলার সকল ইউপি চেয়ারম্যানবৃন্দ,বীর মুক্তিযোদ্ধা, স্থানীয় রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব,আইনশৃঙ্খলা বাহিনির সদস্য, সাংবাদকর্মী,সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার,নারি নেতৃবৃন্দ,৮৯১/৯৯৫ শ্রমিকবৃন্দ এবং বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
সামগ্রিক অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন বেনাপোল পোর্ট থানার সেকেন্ড অফিসার এস,আই অমিত কুমার।
প্রেরক,
আঃ জলিল
বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের যশোর জেলা কেশবপুর উপজেলা শাখার কমিটি গঠন করা হয়েছে। 
রনি হোসেন, কেশবপুর –
বাংলাদেশ প্রেস ক্লাব কেশবপুর উপজেলা শাখার কমিটি গঠিত হয়েছে।
গত শুক্রবার বিকেলে বাংলাদেশ প্রেসক্লাব যশোর জেলা শাখার সভাপতি মতিউর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক আমিনুর রহমান স্বাক্ষরিত কমিটিতে এস আর সাঈদকে সভাপতি, কৃষ্ণপদ দাস, জাকির হোসেন, আরশাদুল ইসলাম, নাসির উদ্দিন ও আক্তার উজ-জামানকে সহ-সভাপতি, কে এম মিজানুর রহমানকে সাধারণ সম্পাদক, আনিসুর রহমান ও গৌতম চট্টোপাধ্যায় কে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, শামীম রেজা কে সহ সম্পাদক, আবু হুরাইয়ারা রাসেলকে সংগঠনিক সম্পাদক, এনামুল কবির কে সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক, শফিকুল ইসলাম সুইট কেক কোষাধ্যক্ষ, আবুল বাশার কে দপ্তর সম্পাদক, নুরুজ্জামানকে সহ দপ্তর সম্পাদক, রনি হোসেনকে প্রচার সম্পাদক, মিজানুর রহমান মিল্টনকে মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক, তহমিনা খাতুনকে মহিলা বিষয়ক সম্পাদক, আল হেলাল কে তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক, নাজমুল আলম কে শিক্ষা ও সাহিত্য বিষয়ক সম্পাদক, তুহিন হোসেনকে যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক, মেহেদী হাসান সুমনকে সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক, অলোক বসু বাপিকে সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক নির্বাচন করে ৪১ সদস্য বিশিষ্ট বাংলাদেশ প্রেসক্লাব কেশবপুর উপজেলা শাখার দ্বি-বার্ষিক কমিটি করা হয়েছে।
ছবিতে – – বাংলাদেশ প্রেসক্লাব যশোর জেলা শাখার সভাপতি মতিয়ার রহমান ও সাধারণ সম্পাদক আমিনুর রহমান কেশবপুর উপজেলা শাখার সভাপতি এস আর সাঈদ ও সাধারণ সম্পাদক কে এম মিজানুর রহমানের হাতে অনুমোদিত কমিটি হস্তান্তর করেন।
ঝিকরগাছা ইউঃস্পোটিং ক্লাবের উদ্দ্যোগে ক্রিকেট খেলার প্রস্তুতি মুলক আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত।

আঃজলিল,স্টাফ রিপোর্টারঃ–
যশোরের  ঝিকরগাছা শংকরপুর ইউনিয়নের  কুলবাড়ীয়া ইউনাইটেড স্পোটিং ক্লাবের উদ্দ্যোগে ৮দলীয় নক আউট সিক্স সাইড’স ক্রিকেট টুর্নামেন্ট খেলা উপলক্ষে প্রস্তুতি মুলক আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত।
ইং ৩০/১২/২২তাং শুক্রবার রাত ৯ ঘটিকার সময় কুলবাড়ীয়া বি,কে,এস মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের হলরুমে কুলবাড়ীয়া ইউনাইটেড স্পোটিং ক্লাবের উদ্দ্যোগে ৮দলীয় নকআউট সিক্স সাইড’স ক্রিকেট টুর্নামেন্ট খেলা উপলক্ষে প্রস্তুতি মুলক আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়।
এ সময় আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন শংকরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আঃ রহিম পশারি আওয়ামী লিগের অন্যাতম নেতা নাজমুস সাদাত, কুলবাড়ীয়া ১নং ওয়ার্ডের মেম্বার মোঃওজিয়ার রহমান,মাষ্টার আশরাফ হোসেন,কুলবাড়ীয়া  কুলবাড়ীয়া ইউনাইটেড স্পোটিং ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মাষ্টার জাহাঙ্গীর আলম,বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী কুলবাড়ীয়া ইউনাইটেড স্পোর্টিং ক্লাবের প্রধান উদ্দ্যোক্তা    এনামুল হক লাল্টু,যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আক্তারুল ইসলাম,সাংবাদিক জয়নাল আবেদীন,সাংবাদিক আঃজলিল, মাষ্টার হুমায়ুন কবির বিল্লাহ, কবিরুল ইসলাম, মহাসিন কবীর, কামরুজ্জামান মন্টু,ইব্রাহিম হোসেন সহ আর অনেকে।
ক্রিকেট খেলার প্রস্তুতি মুলক আলোচনা সভায় ৪ সদস্যের বিশিষ্ট একটি আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়। আহবায়ক কমিটি সদস্যরা হলেন মোঃ নাজমুস সাদাত, মোঃ আঃরহিম পশারী, ওজিয়ার রহমান মেম্বার, সাবেক মেম্বার  আহসান হাবিব।
আলোচনা পরিশেষে এলাকার সুধিজন রাজনৈতিক ব্যাক্তিত্ত, আপামর জনসাধারণ কে সাথে নিয়ে মর্ধন্যভোজের মধ্যেদিয়ে  আলোচনা সভার কার্যক্রমের পরিসমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।
প্রেরক,
আঃজলিল