“শ্রীপুরে প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি ও বীর মুক্তিযোদ্ধা বাড়ি-ঘর ভাংচুরের অভিযোগ”


প্রকাশের সময় : নভেম্বর ৩০, ২০২২, ৯:১১ অপরাহ্ন / ২৫২
“শ্রীপুরে প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি ও বীর মুক্তিযোদ্ধা বাড়ি-ঘর ভাংচুরের অভিযোগ”
“শ্রীপুরে প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি ও বীর মুক্তিযোদ্ধা বাড়ি-ঘর ভাংচুরের অভিযোগ”
মুজাহিদ শেখ, শ্রীপুর (মাগুরা) প্রতিনিধি –
মাগুরা শ্রীপুর প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম মিয়া মাজেদুর রহমানের বাড়ি-ঘর ভাংচুুর করেছে প্রতিবেশি প্রতিপক্ষরা। গত সোমবার তাঁর গ্রামের বাড়ি উপজেলার ছোনগাছা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ব্যাপারে শ্রীপুর থানায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে। ভুুক্তভোগী মিয়া মাজেদুর রহমানের ছেলে হুমায়ুন কবির জানান, প্রতিবেশি ইকরাম আলী মিয়ার মেয়ে তুলি বেগম তার (হুমায়নের) ১৮ বছর বয়সী ভাগনি সাদিকাকে গত ১৭ নভেম্বর ফুসলিয়ে বাড়ি থেকে সরিয়ে দেয়। তাকে না পেয়ে তিনি বাদি হয়ে পরদিন ১৮ নভেম্বর শ্রীপুর থানায় তুলি বেগমের নামে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তুলি বেগমকে আটক করে। পরে তাকে মুচলেকায় ছেড়ে দেয়। এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে তুলি বেগমের ভাই বায়েজিদ মিয়া, বিরু মিয়া, শামীম মিয়া, আশা মিয়া, ফেরদৌস মিয়া, আবু খালিদ মিয়া ও ভাতিজা শিহাব মিয়া, আশিক মিয়া ইয়ামিন মিয়া ও তুষার মিয়াসহ তাদের দলীয় লোকজন মরহুম বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সাংবাদিক মিয়া মাজেদুর রহমানের বাড়ির চারপাশের টিনের বেড়া ও ঘর ভাংচুর করে। এ সময় তাদের বাধা দিতে গেলে মাজেদুর রহমানের ছোট ছেলে মেহেদী হাসান সোহাগ, প্রতিবেশি মিটুল মিয়া, শাবানা ও সমাপ্তিকে মারধর করে গুরুতর আহত করে। তারা বর্তমানে মাগুরা ২৫০ শয্যা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এরপরও তাদের হুমকি-ধামকি অব্যাহত রয়েছে।
এ বিষয়ে অভিযুক্ত বায়জিদ মিয়া জানান, তাদের ভাগনিকে নিয়ে আমার বোনকে মিথ্যাভাবে হয়রানি করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে আমার দুই ভাতিজা তাদের বাড়িতে ভাংচুর করেছে। এ ব্যাপারে শ্রীপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাব্বারুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিলো। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
মুজাহিদ শেখ
শ্রীপুর উপজেলা প্রতিনিধি