“মোংলার পশুর নদীতে কয়লাবাহী কার্গো জাহাজ দুর্ঘটনাকবলিত”


প্রকাশের সময় : নভেম্বর ১৩, ২০২২, ৪:১১ অপরাহ্ন / ২৯০
“মোংলার পশুর নদীতে কয়লাবাহী কার্গো জাহাজ দুর্ঘটনাকবলিত”
“মোংলার পশুর নদীতে কয়লাবাহী কার্গো জাহাজ দুর্ঘটনাকবলিত”
মোঃ শামীম হোসেন- খুলনা –
মোংলা বন্দরের পশুর নদীতে রামপাল তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্রের কয়লাবাহী একটি কার্গো জাহাজ দুর্ঘটনাকবলিত হয়েছে। বন্দরের হাড়বাড়ীয়ায় থাকা বিদেশি জাহাজ থেকে কয়লা বোঝাই করে রামপাল তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্রের জেটিতে যাওয়ার পথে ডুবোচরে আটকে জাহাজটির ডেক ফেটে দুর্ঘটনাকবলিত হয়। সাথে সাথে জাহাজটি পশুর নদীর পূর্বপাড়ের চরে উঠিয়ে দেয় কার্গো মাস্টার। দুর্ঘটনাকবলিত এম.ভি জুমায়রা-১ কার্গো জাহাজের মাস্টার ফারুক গাজী জানান, বন্দরের হাড়বাড়ীয়ার ৫ নম্বর এ্যাংকোরেজে থাকা বিদেশি জাহাজ এম.ভি পিথাগোরাস থেকে সাড়ে ৮শ মেট্রিক টন কয়লা বোঝাই করে শুক্রবার সকালে কার্গোটি ছেড়ে আসে। এরপর কার্গোটি জোয়ারের অপেক্ষায় ৫ নম্বর এ্যাংকোরেজ এলাকায় অবস্থান নিয়ে থাকে। পরে জোয়ার হওয়ার পর সকাল ১০টার দিকে কার্গোটি রামপাল তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্রের জেটির উদ্দেশে রওনা হয়। পথিমধ্যে পশুর নদীর চরকানা এলাকায় পৌঁছালে কার্গোটির সুকান ফেল করলে ডুবোচরে আটকে জাহাজের দুই পাশের ডেক ফেটে যায়। এ সময় জাহাজটি দ্রুত চরে উঠিয়ে দেন কার্গো মাস্টার। যার কারণে নদীতে ডোবা থেকে রক্ষা পেয়েছে জাহাজটি। এখন জাহাজটি চরে ঝুঁকিমুক্ত অবস্থায় রয়েছে। তিনি আরও বলেন, ক্রেন এনে দুর্ঘটনাকবলিত কার্গোর কয়লা অপসারণ করে জাহাজটি নিরাপদে সরিয়ে নেওয়া হবে। দুর্ঘটনাকবলিত জাহাজটি চরে উঠিয়ে দিতে পারায় এর ১২ জন কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ কার্গোটি নিরাপদে রয়েছে। ডেক ফেটে গেলেও জাহাজের অভ্যন্তরে পানি প্রবেশ করতে পারেনি।