মণিরামপুরে স্কুল শিক্ষিকা ছালীমা আক্তারের যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে থানায় মিথ্যা ভিত্তিহীন অভিযোগ


প্রকাশের সময় : অগাস্ট ২৭, ২০২৩, ৬:২৮ অপরাহ্ন / ১৯৪
মণিরামপুরে স্কুল শিক্ষিকা ছালীমা আক্তারের যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে থানায় মিথ্যা ভিত্তিহীন অভিযোগ
যশোর জেলা প্রতিনিধি
মণিরামপুর দূর্গাপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা ছালীমা আক্তার সামান্য কথাকাটির জেরে যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে বিভিন্ন পত্রিকায় ভুয়া ভিত্তিহীন সংবাদ প্রচার করে যুবলীগ নেতার মান সম্মান ক্ষুন্ন করছেন।
এবিষয়ে উপজেলা প্রেসক্লাবের সাংবাদিক বৃন্দ সরেজমিনে দূর্গাপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গেলে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন স্কুলের প্রধান শিক্ষক সহ অন্যান্য শিক্ষক শিক্ষিকা ।
স্কুলের প্রধান শিক্ষক সাংবাদিকদের জানান শিক্ষিকা ছালীমা আক্তারের সাথে যুবলীগ নেতা মিজানুর রহমান এর কথাকাটাকাটি হয়েছে সেটা আমরা জানি কিন্তু ছালীমা আক্তার কে চুলের মুঠি ধরে মারধর করেছে কিনা সেটা আমরা দেখিনি। এছাড়াও স্কুলের শিক্ষিকারাও বলেন আমরা মারামারি বা ছালীমা আক্তার কে আঘাত করতে দেখিনি। স্কুলের প্রধান শিক্ষক বলেন আমি স্কুলের প্রধান এই স্কুলে কোন সমস্যা হলে আগে আমাকে এবং স্কুল কমিটিকে জানানো উচিত ছিল। কিন্তু শিক্ষিকা আমাকে না জানিয়ে নিজের ইচ্ছামত প্রেসক্লাবে গিয়ে  মিথ্যা বানোয়াট কথা বলে নিউজ করিয়েছেন এবং যুবলীগ নেতা মিজানুর রহমান এর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।
এবিষয়ে মণিরামপুর প্রেসক্লাব মিজানুর রহমান এর বিরুদ্ধে বিভিন্ন পত্রিকায় নিউজ করেন, এবং ২৪ আগস্ট বৃহস্পতিবার মণিরামপুর থানা পুলিশের আয়োজনে জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠান থেকে যুবলীগ নেতাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।
এবিষয়ে উপজেলা প্রেসক্লাব মণিরামপুর এর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এস এম লুৎফর রহমান বলেন একটি ঘটনা ভালভাবে যাচাই বাছাই না করে যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে মিথ্যা ভিত্তিহীন নিউজ করে দলের ভাবমূর্তি নষ্ট করছে মণিরামপুর প্রেসক্লাব।