“বাড়ি ফেরা ভাগ্যে জুটলো না কুয়েট শিক্ষার্থী রাহুলের”


প্রকাশের সময় : নভেম্বর ১৩, ২০২২, ৩:৩২ অপরাহ্ন / ২৮৩
“বাড়ি ফেরা ভাগ্যে জুটলো না কুয়েট শিক্ষার্থী রাহুলের”
“বাড়ি ফেরা ভাগ্যে জুটলো না কুয়েট শিক্ষার্থী রাহুলের”
মোঃ আমজাদ হোসেন জয়পুরহাট জেলা প্রতিনিধি –
১১ নভেম্বর, ২২ইং-
জয়পুরহাটে ট্রেনে কাটা পড়ে রাহুল হোসেন (২৩) নামে  একজন কুযেট শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। শুক্রবার ভোরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সান্তাহার রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোক্তার হোসেন।
রাহুল হোসেন (২৩) বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার কালীপাড়া গ্রামের মৃত শাহরিয়ার রইচের ছেলে। সে খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্বিবদ্যালয়ের (কুয়েট) লেদার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র ছিল।
পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্বিবদ্যালয়ের (কুয়েট) লেদার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র ছিল রাহুল হোসেন। কুয়েটের একাডেমী পরীক্ষা শেষ করে গত বৃহস্পতিবার রাত ৪টার পরে খুলনা থেকে ছেড়ে আসা চিলাহাটিগামি সীমান্ত এক্সপ্রেস ট্রেনে গ্রামের বাড়ী আসছিল সে। ওই শিক্ষার্থীর মানিব্যাগে পাওয়া ট্রেনের টিকিট অনুযায়ি, খুলনা থেকে ঈশ্বরদী আসেন কুয়েট শিক্ষার্থী রাহুল হোসেন। সেখান থেকে সান্তাহার উদ্দেশে আবার ট্রেনে উঠেছেন সে। তারপর ট্রেনেই ঘুমে পড়েন। ওই অবস্থায় জয়পুরহাটে এসে পৌঁছালে তার ঘুম ভেঙ্গে যায়। দ্রুত জয়পুরহাট স্টেশনে নামার সময় পা পিছলে ট্রেনের নিচে পড়ে তার মৃত্যৃ হয়।  এ ব্যাপারে সান্তাহার রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোক্তার হোসেন মুঠোফোনে বলেন, কুয়েটের একজন শিক্ষার্থী ট্রেনে কাটা পড়ে নিহত হয়েছে। ময়নাতদন্তে শেষে আইনগত প্রক্রিয়া শেষে পরিবারের নিকট লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে।