‘নোয়াখালী হাতিয়ায়  সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তাকে পিটিয়ে জখম’


প্রকাশের সময় : অক্টোবর ১৯, ২০২২, ৪:১১ অপরাহ্ন / ৩৩০
‘নোয়াখালী হাতিয়ায়  সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তাকে পিটিয়ে জখম’
‘নোয়াখালী হাতিয়ায়  সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তাকে পিটিয়ে জখম’
মোঃ হানিফ উদ্দিন সাকিব, হাতিয়া উপজেলা প্রতিনিধি
নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ায় সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা কামরুল হাসানের ওপর হামলা চালিয়েছে একদল মুখোশধারী। এসময় হামলাকারিরা তাঁকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে জখম করেছে।
সোমবার (১৭ অক্টোবর) রাত ৮টার দিকে ওছখালি এলাকায় উপজেলা পরিষদ সংলগ্ন শহীদ মিনার সংলগ্ন  পিছনের  সড়কে এ হামলার ঘটনা ঘটে। তবে কে বা কারা এ হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে তাৎক্ষণাত তা বলতে পারেনি আহত শিক্ষা কর্মকর্তা।
আহত সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা বলেন, সন্ধ্যায় ওছখালির একটি দোকান থেকে নাস্তা করে মোটরসাইকেল যোগে বাসায় ফিরছিলেন তিনি। পথে শহীদ মিনার এলাকায় পৌঁছলে ৮-১০ জনের একদল মুখোশধারি প্রথমে তাকে অপর একটি মোটরসাইকেল দিয়ে ধাক্কা দিয়ে সড়কের ওপর পেলে দেয়। তিনি কোন কিছু বুঝে ওঠার আগেই মুখোশধারিরা তাকে দেশিয় অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে জখম করে। এসময় তাঁর চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে পালিয়ে যায় হামলাকারিরা। পরে স্থানীয় লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে হাতিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তিনি হাতিয়া থানায় গিয়ে মৌখিক অভিযোগ করেন। বর্তমানে নিজ বাসায় রয়েছেন তিনি।
হাতিয়ার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমির হোসেন জানান, শিক্ষা কর্মকর্তা কামরুল হাসান বিষয়টি মৌখিকভাবে জানিয়েছেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করে হামলাকারিদের গ্রেপ্তার করা হবে। এক প্রশ্নের জবাবে পুলিশের এ কর্মকর্তা বলেন, অফিসের এক কর্মচারীর সাথে বিরোধের জেরে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে শুনেছি।