তৃণমূল পর্যায়ে আওয়ামী লীগ ত্যাগী কর্মী এক হয়ে আবার জননেত্রী কে ক্ষমতায় আনতে হবে -কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা হুমায়ুন সুলতান। 


প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২৩, ৩:৩৪ অপরাহ্ন / ২১০
তৃণমূল পর্যায়ে আওয়ামী লীগ ত্যাগী কর্মী এক হয়ে আবার জননেত্রী কে ক্ষমতায় আনতে হবে -কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা হুমায়ুন সুলতান। 
তহিদুল ইসলাম মণিরামপুর উপজেলা প্রতিনিধি
যশোর মণিরামপুর কুলটিয়া ইউনিয়নে বিশাল জনসভা ও তৃণমূল আওয়ামী লীগের মিলন মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বাবু প্রভাত মল্লিক এর সভাপতিত্বে।
কুলটিয়া ইউনিয়ন সেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক
রাজু বিশ্বাসের সঞ্চলনায়
প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য, যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য, প্রায়ত খান টিপু সুলতানের সুযোগ্য পুত্র।যশোর (পাঁচ)  আসনের সংসদ সদস্য মনোনয়ন প্রত্যাশী হুমায়ুন সুলতান।
এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্য কালে বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার বিকল্প আর কিছু নাই।একমাত্র মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা এই দেশের মানুষ কে ভালো রাখেন,একমাত্র রাষ্ট্র নায়ক জিনি বাংলাদেশ কে এশিয়া মহাদেশের মধ্যে উন্নয়ন শিল দেশ হিসাবে বাংলাদেশ কে পরিচিত করেছেন।বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্র প্রধান আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর জননেত্রীর কাছ থেকে সাজেশন নিচ্ছেন। কিভাবে এতো অল্প সময়ে বাংলাদেশে এতো উন্নয়ন সম্ভব,পদ্ম সেতু,মেট্রোরেল, উড়াল সেতু,মডেল রেলস্টেশন,মডেল স্কুল, কলেজ,রাস্তাঘাট, মন্দির মসজিদ,মাদ্রাসা, প্রতিবন্ধী ভাতা, বয়স্ক ভাতা,মাতৃকালীন ভাতা,ভিজিএফ চাউল,ভুমিহীনের ঘর জমি,দেশের সকল কে করোনা কালিক সময়ে ভ্যাকসিন দেওয়া থেকে শুরু করে এমন কোনো জায়গা নাই সেখানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন নাই।মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা রাত দিন শুধু দেশের মানুষের কথা ভাবেন।আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন কে সামনে রেখে আমরা সবাই ঐক্য বদ্ধ হয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন কে তৃণমূল পর্যায়ে তুলে ধরুন।তৃণমূলের সকল নেতা কর্মী রাগ অভিমান ভুলে আমাদের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা কে ক্ষমতায় আনতে হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা তৃণমূল পর্যায়ে নেতা কর্মী কে মুল্যায়ন করেন।আপনারা আপনাদের নিজ নিজ অবস্থান থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা কে ক্ষমতায় আনতে চেষ্টা করুন।আপনারা আপনাদের মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে বার্তা দিন।কাকে আপনারা চান,কে এমপি হলে আপনারা নিরাপদে থকবেন,শান্তিতে থাকবেন।আসুন আমরা বিভেদ ভুলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা কে আবার ও ক্ষমতায় আনতে গ্রামে গ্রামে  সাধারণ মানুষ কে সচেতন করি।বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাবেক মণিরামপুর উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি সৃকৃতি রঞ্জন বিশ্বাস।সাবেক মণিরামপুর উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি বিল্লাল হোসেন মিন্টু।সাবেক মণিরামপুর উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী আমেনা বেগম।মণিরামপুর উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক অরবিন্দু হাজরা। মণিরামপুর উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক সেলিম রেজা।সাবেক কুলটিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা প্রভাত মল্লিক,
এছাড়াও কুলটিয়া ইউনিয়নের মুক্তি যোদ্ধারা বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন। আরে উপস্থিত ছিলেন  মণিরামপুর উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শহিদুল ইসলাম, উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগের নেতা আঃ রায়হান,
পৌর  কাউন্সিলর  বাবুল আক্তার, চালুয়াহাটী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক  সম্পাদক আমজেদ আলী
মশ্বিমনগর ইউনিয়ন সেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক আঃ মান্নান,দুর্বডাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা বাপ্পি, রাজু,রিপন,ফয়সাল, সহ আওয়ামী লীগ যুবলীগ, ছাত্রলীগ, সহ আওয়ামী লীগের অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।