“তাহিরপুরে রাস্তা গর্ত করে হচ্ছে চাঁদা আদায়”


প্রকাশের সময় : নভেম্বর ২৭, ২০২২, ৬:৫০ অপরাহ্ন / ২৮৮
“তাহিরপুরে রাস্তা গর্ত করে হচ্ছে চাঁদা আদায়”
“তাহিরপুরে রাস্তা গর্ত করে হচ্ছে চাঁদা আদায়”
শওকত হাসান,তাহিরপুর প্রতিনিধিঃ-
তাহিরপুর উপজেলায় তাহিরপুর-বাদাঘাট বাজারে যাতায়াতের রাস্তা গর্ত করে চাঁদা আদায় করছে। প্রতি গাড়ি থেকে ২০ টাকা করে টাকা আদায় করা হচ্ছে। স্থানীয় এলাকাবাসী জানায়, তাহিরপুর-বাদাঘাট সড়কের পারাপারের জন্য বর্ষা ছয় মাসের খাস কালেকশন পায় উপজেলা ছাত্রলীগ। বর্ষা ছয় মাস নৌকা দিয়ে পার করলেও এখন রাস্তা শুকিয়ে গেছে। শুকনো রাস্তা রাত ১টার দিকে গর্ত করে ভেঙ্গে দেয় বাদাঘাট বাজারের আজিজুল হকের নেতৃত্বে ইসলামপুরের সালাম মিয়া ও তার লোকজন। সকালে গর্ত করা স্থানে বাঁশের চাটাই দিয়ে প্রতি গাড়ি ২০টাকা করে আদায় করছে তারা।
উপজেলা নির্বাহী অফিস সূত্রে জানাযায়, তাহিরপুর- বাদাঘাট সড়কের খেয়া ঘাটের বর্ষা ছয় মাসের জন্য উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের জাহাঙ্গীর আলম এর নামে উপজেলা ছাত্রলীগ কে খাস কালেকশন দেয় উপজেলা প্রশাসন। এ বিষয়ে সালাম মিয়া কে জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন, রাত ১ টার দিকে ট্রাক এসে রাস্তাটা ভেঙ্গে দিয়ে যায়। আমরা ভাঙ্গা রাস্তায় বাঁশের চাটাই দিচ্ছি।
জাহাঙ্গীর আলমের মুঠোফোনে একাধিকবার কল দিলেও ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। তবে এবিষয়ে তাহিরপুর উপজেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান বলেন, ৩০অক্টোবর পর্যন্ত খাস কালেকশনের মেয়াদ হলেও খাস কালেকশনের পেতে ২মাস দেড়ি হওয়ায় সাবেক ইউএনও ২মাস বাড়িয়ে ৩০ডিসেম্বর পর্যন্ত খাস কালেকশনের মেয়াদ দেন। রাস্তা গর্ত করার বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, এখন রাস্তা শুকিয়ে যাওয়ায় যে স্থান গুলোতে পানি ও ভাঙা সেই স্থানে বাঁশের চাটাই করে দেয়া হয়েছে। এবং এখন থেকে প্রতি গাড়ি ১০টাকা করে রাখার কথা বলে দিয়েছি।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুপ্রভাত চাকমা বলেন, রাস্তা গর্ত করার বিষয়টি শুনেছি সরজমিন পরিদর্শন করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
শওকত হাসান
তাহিরপুর, সুনামগঞ্জ
০১৭১৭৯৮৬২৩২