ঝাঁপা বাঁওড়ে নির্মিত পুরাতন ভাসমান সেতুর নুতন নামকরণ করা হতে যাচ্ছে । 


প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারী ১১, ২০২৩, ৭:২৬ অপরাহ্ন / ৩৫০
ঝাঁপা বাঁওড়ে নির্মিত পুরাতন ভাসমান সেতুর নুতন নামকরণ করা হতে যাচ্ছে । 
ঝাঁপা বাঁওড়ে নির্মিত পুরাতন ভাসমান সেতুর নুতন নামকরণ করা হতে যাচ্ছে । 
এস,এম রাকিব // যশোর স্টাফ:
যশোর মনিরামপুরের রাজগঞ্জ, ঝাঁপা পর্যটক কেন্দ্র করে বাংলাদেশের রেকর্ড সৃষ্টি করবে মাননীয় স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন সমবায়   প্রতিমন্ত্রী বাবু স্বপন কুমার ভট্রাচার্য্য তারই আলোকে ঝাঁপাগ্রাম উন্নায়ন ফাউন্ডেশনের কার্যনির্বাহী পরিষদের কর্মীরা  আলোচনা করেন যে যেহেতু ঝাঁপা গ্রামে বহু মুক্তিযোদ্ধা আছে তাই তাদের স্মরণে সেতুর নামটি পরিবর্তন  করে মুক্তিযোদ্ধা ভাসমান সেতু(অনাথের ঘাট) রাখা হোক। তারই আলোকে উর্ধতন মহলের অনুমতিক্রমে সেতুর নাম পরিবর্তন করে মুক্তিযোদ্ধা ভাসমান সেতু (অনাথের ঘাট) রাখা হয়েছে।
জানা যায়,  কয়েকবছর আগে নদীতে পারাপারের একমাত্র মাধ্যম ছিল নৌকা বা ট্রলার তখন মানুষের দুঃখের সীমা ছিল না। পরীক্ষার কেন্দ্রে হাজির হতে পারত না  সমসয়মত এমনকি আনুমানিক ৪-৫ বছর আগে নৌকা ডুবে  এক এসএসসি পরীক্ষার্থী মারা যায়। দীর্ঘ ৮-৯ঘন্টার ব্যবধানে তার লাশটি উদ্ধার করতে সক্ষম হয় ফায়ারসার্ভিস এবং ডুবুরি টিম এমন টা জানিয়েছেন এলাকাবাসী।এ ছাড়াও জানা যায় ঝাঁপা সরদার পাড়ার ডাঃআজিবার রহমানের বড় ছেলে অসুস্থ হলে শুধু মাত্র নদী পারাপারের কারনে রাতে  চিকিৎসা অভাবে মারা জান।  সেতুটি হওয়ার পর থেকে এমন আর কোন দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা নাই বা ঘটেনি।  স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা নিয়মিত সঠিক টাইমে হাজির হতে পারে পরীক্ষার কেন্দ্রও সময়মত অংশগ্রহণ করতে পারে ব্যাসায়ীরা এবং চাকুরিজিবীরা সবাই নির্দিষ্ট সময়ে হাজীর হতে পারে তাদের গন্তব্যস্থলে। এলাকাবাসীদের দাবী একটাই যদি একটি  উন্নতম ব্রিজ বা সেতু করে দিত আমাদের দেশরত্ন মাতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাইলে যদি আমাদের গ্রামে চলাচল করা  না শুধু আমাদের এলাকার বিভিন্ন দ্রব্যদী সবজি কাচামাল মাছ সহ অন্যান্য নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস বড় বাজারে বিক্রয় করে দেশের অর্থনৈতিক চাহিদা কিছুটা হলেও কমিয়ে আসত এছাড়া বড় যানবাহন গুলাও স্পল্প সময়ে তার গন্তব্য স্থলে পৌছাতো।
এখন সেতুর কতৃপক্ষের দাবী মাননীয় প্রতিমন্ত্রী মহোদয় যদি পূনারয় সেতুটি উদ্বোধন করতেন তাহলে এই নামটি আবার সারা বিশ্বে দ্রুত ছড়িয়ে পড়তো,তাই সকলের দাবী মন্ত্রী মহোদয় আমাদের এই সেতুটি পুনরায় উদ্বোধন করে যেন নামটি সারা বিশ্বে ছড়িয়ে দিতে সহযোগিতা করেন। এইটা আমাদের সেতুর সকল সদস্য ও গ্রাম বাসীর দাবী।  মন্ত্রী মহোদয়ের নিকট বিষয়টি আমলে আনার জন্য গ্রাম বাসী এবং সেতুর সকল সদস্যদের জোর দাবী জানান।