“চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে গোপন বৈঠককালে ২০ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ”


প্রকাশের সময় : নভেম্বর ২৪, ২০২২, ৪:০২ অপরাহ্ন / ৪২২
“চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে গোপন বৈঠককালে ২০ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ”

“চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে গোপন বৈঠককালে ২০ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ”

ফয়সাল আজম অপু, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলায় বিএনপি নেতা আসরাফুল ইসলাম চেয়ারম্যানের বাড়ির মোটর গ্যারেজে অভিযান চালিয়ে বিএনপির ২০ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পুলিশের দাবী তারা ওই গ্যারেজে গোপন বৈঠকে মিলিত হয়েছিলেন। মঙ্গলবার (২২ নভেম্বর) দুপুর সাড়ে ৪ টার দিকে শিবগঞ্জ থানাধীন নয়ালাভাঙ্গা ইউনিয়নের রশিক নগর বাবুপুর গ্রামের আলহাজ্ব আশরাফুল হক চেয়ারম্যানের গাড়ী রাখা গ্যারেজে বৈঠককালে ওই ২০ নেতা-কর্মীকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃত আসামীরা হলো জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার তাজেরুল ইসলাম (৫২), পিতা-মৃত সাজেমান আলী, সাং-কানসাট (বহলাবাড়ী), সায়রন আলম (৫০), পিতা-মোঃ হুমায়ুন রেজা, সাং-তারাপুর (ঠঠাপাড়া), আনারুল হক (৫৫), পিতা-মৃত মহসিন আলী, সাং-উত্তর উজিরপুর, মোঃ সারোয়ার জাহান সেন্টু (৫২), পিতা-মৃত ফাইজুদ্দিন আহম্মেদ, সাং-দৌলতপুর (উপরটোলা), ফজলে বারী (@ পপুল (৬০), পিতা-মৃত ইয়াসিন আলী, বর্তমান সাং-তত্তীপুর, স্থায়ী সাং-লক্ষীপুর বোগলাউড়ি, ইউপি-পাকা, মমিন আলী (৪৫), পিতা-মোঃ মহসীন আলী, সাং-চৈতন্যপুর (বিজয় মোড়), শরিফ উদ্দিন (৪৭), পিতা-মৃত জালাল উদ্দিন, সাং-তারাপুর (ঠুঠাপাড়া), শরিফ উদ্দিন (৪০), পিতা-মৃত কয়েশ উদ্দিন, সাং-কালীগঞ্জ (মালোপাড়া), আঃ সালাম (৬৫), পিতা-মৃত মেরাস উদ্দিন, সাং-চৌকা (মনাকষা), হাবিবুর রহমান (২) হাবিব (৪২), পিতা-মৃত লিয়াকত আলী, সাং- চকঘোড়াপাখিয়া, মহব্বত আলী ওরফে তুষার (৪২), পিতা-মৃত আঃ মতিন, সাং-দক্ষিন উজিরপুর, তারিফুল ইসলাম ওরফে তারিফ মাস্টার (৪৩), পিতা- সেরাজুল ইসলাম, সাং-ছত্রাজিতপুর (দশ ভাইয়াপাড়া), মইনুল ইসলাম মুকুল (৫৫), পিতা-মৃত মুনজুর রহমান, সাং-দৌলতপুর, দাহারুল ইসলাম ওরফে কামাল (৪৩), পিতা-মৃত হুমায়ুন আলী, সাং-লক্ষীপুর, ইউপি-পাকা, নজরুল ইসলাম (৬৫), পিতা-মৃত ফকির উদ্দিন মন্ডল, সাং-কাশিয়াবাড়ী।

শিবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চৌধুরী জোবায়ের আহমেদ জানান, মঙ্গলবার (২২ নভেম্বর) বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার নয়া লাভাঙ্গা ইউনিয়নের রানিহাটী-বাবুপুর এলাকায় আলহাজ্ব আসরাফুল ইসলাম চেয়ারম্যানের মোটর গ্যারেজে বিএনপির ৮০/৮৫ জন নেতা-কর্মী সরকার বিরোধী গোপন বৈঠক করার জন্য একত্রিত হয়। বৈঠক চলাকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ সুপার এএইচএম আবদুর রকিব বিপিএম-পিপিএম (বার) এর নির্দেশনায় শিবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমি চৌধুরী জোবায়ের আহমেদ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান চালিয়ে ২০ জন বিএনপির নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করি।

বর্তমান নির্বাচিত গণতান্ত্রিক সরকারকে নাশকতার মাধ্যমে অবৈধ উপায়ে উৎখাত করার জন্য বিএনপি এর কতিপয় দুষ্কৃতিকারী নেতা, কর্মী, সমর্থক পরিকল্পিতভাবে নাশকতা ও সরকারী সম্পত্তি ক্ষতিসাধনের লক্ষ্যেই এই গোপন বৈঠক।

তিনি আরও জানান, সামনে পৌছামাত্রই পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে গোপন বৈঠক চলাকালীন উপরোক্ত আসামীগণ সহ অজ্ঞাতনামা ৮০/৮৫ জন আসামী দিক বিদিক দৌড়ে পালানোর সময় আমাদের উপর ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে। আসামীদের ছোড়া ইটের আঘাতে অত্র থানার এসআই সাইফুল ইসলাম, আব্দুল বারী, মাহফুজার রহমান, নজরুল ইসলামের শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম প্রাপ্ত হয়। উক্ত সময় অফিসার ফোর্সের সহায়তায় উপরোক্ত আসামীদেরকে ধরতে সক্ষম হই।

এ সময় গ্রেফতারকৃতদের কাছে থাকা লোকজনদের সামনে ঘটনাস্থল হতে ১টি কালো রংয়ের কাপড়ের ব্যাগের মধ্যে বালিসহ উপরোক্ত অবিস্ফোরিত ৭ (সাত) টি ককটেল এবং ঘটনাস্থল হতে ১০টিছোট ইটের টুকরা উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃত আলামত সমূহের বিধি মোতাবেক জব্দ তালিকা প্রস্তুত করে সাক্ষীদের স্বাক্ষর গ্রহণ করে মামলা প্রক্রিয়াধীন।

ফয়সাল আজম অপু

চাঁপাইনবাবগঞ্জ

০১৭১২৩৬৩৯৪৬

#২৩.১১.২০২২#

শিবগঞ্জে ৮৮ নং উজিরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ‍্যালয়ের নতুন ভবন উদ্বোধন।

মো: মিজানুর রহমান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি –
চাঁপাইনবাবগঞ্জ শিবগঞ্জ  উপজেলায় ৮৮ নং উজিরপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ‍্যালয়ের নতুন ভবনের উদ্বোধন করেছেন মাননীয় সংসদ সদস্য ৪৩ চাঁপাইনবাবগঞ্জ ০১ ডা: মো সামিল উদ্দিন আহমেদ  শিমুল এমপি।
মঙ্গলবার (২২নভেম্বর ২০২২) সকাল ১১ টায় ৮৮ নং উজিরপুর  সরকারী প্রাথমিক বিদ‍্যালয়ের নতুন ভবন উদ্বোধন করা হয়।  অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন মো শফিকুল ইসলাম, এ সময় উপস্থিত ছিলেন শিবগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ গোলাম কিবরিয়া, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো তোহিদুল আলম টিয়া, উপজেলা এলজিইডি অফিসের সার্ভেয়ার মোঃ আব্দুল হাকিম, উপজেলা শিক্ষা অফিসার পরিমল কুমার, ইউপি সদস্য মোঃ সাদিকুল ইসলাম সহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন। ডা: মো সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল এমপি বলেন, এই সরকার শিক্ষা বান্ধব সরকার। শিক্ষার পরিবেশ ও মান উন্নয়নে বর্তমান সরকার বদ্বপরিকর। তিনি শিশুদের মানসিক বিকাশে সুন্দর পরিবেশের উপর গুরুত্বারোপ করেন। সভাপতির বত্তব‍্যে মো শফিকুল ইসলাম বলেন,শিক্ষার মান্নোয়নে সরকার সারাদেশে বিদ‍্যালয় গুলোতে নতুন-নতুন বিদ‍্যালয় ভবন নির্মাণ করছে।
নতুন স্কুল ভবন উদ্বোধনে অন‍্যান‍্যের আরো উপস্থিত ছিলেন,উজিরপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্য শিক্ষক,শিক্ষার্থী, অভিভাবক, ও সুধীজন উপস্থিত ছিলেন।
“শিবগঞ্জে নির্বাচন অফিসে কথিত পরিচ্ছন্ন কর্মীর ঘুষ বাণিজ্যের অভিযোগ”
মোঃ নাহিদ উজ্জামান, শিবগঞ্জ উপজেলা প্রতিনিধি –
চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন অফিসে কথিত পরিচ্ছন্ন কর্মীর বিরুদ্ধে ঘুষ বাণিজ্যের অভিযোগ পাওয়া গেছে। আর নির্বাচন অফিসে আস্থা না থাকায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার কে লিখিতভাবে ঘুষ বাণিজ্যের অভিযোগ করেছেন এক ভুক্তভোগী। ঘুষ বাণিজ্যের সাথে জড়িত কথিত নিয়োগপ্রাপ্ত আউটসোর্সিং পরিচ্ছন্ন কর্মী মোঃ রকি’র বিরুদ্ধে এই অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী শিবগঞ্জ উপজেলার শ্যামপুর ইউনিয়নের বাজিতপুর এনায়েত বিশ্বাসপাড়ার মৃত আলাউদ্দিনের ছেলে আবু সায়েম। শুধু আবু সায়েম নয়, নির্বাচন অফিসে সেবা নিতে এসে অনেকে হয়রানীর শিকার হচ্ছেন বলেও বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে। উপজেলা প্রশাসন বলছেন, প্রতিটা নাগরিককে সঠিক ও হয়রানীমুক্ত সেবা প্রদানে নিরাসলভাবে কাজ করা হচ্ছে এবং অনিয়ম, দূর্ণীতি আর ঘুষ বাণিজ্য মুক্ত করতে সব ধরনের আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তবে, উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বলছেন আমার দপ্তরে আমি-ই প্রধান, ইউএনও আমার দপ্তরের প্রধান না!
জানা গেছে, নির্বাচন কমিশনের প্রজ্ঞাপন ছাড়াই উপজেলা নির্বাচন অফিসার ব্যক্তিগতভাবে মোঃ রকি কে পরিচ্ছন্ন কর্মী হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন ৬ মাস আগে। কিন্তু একজন পরিচ্ছন্ন কর্মী হয়েও মোঃ রকি নির্বাচন অফিসের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ কাজ করেন। এছাড়া তাঁর পরিধানের পোষাক সমূহ দেখে মনে হয় তিনি একজন উচ্চ পদের কর্মকর্তা ও অফিসে যাতায়াতে ব্যবহার করেন মটরসাইকেল।ভুক্তভোগী আবু সায়েম জানান, গত ২০ নভেম্বর আমি নতুন ভোটার হওয়ার জন্য অনলাইন আবেদনসহ সমস্ত কাগজপত্র উপজেলা নির্বাচন অফিসে জমা দিয়েছি। কিন্তু তাৎক্ষনিক ভোটার হওয়ার জন্য ছবি তুলতে চাইলে নির্বাচন অফিসের মোঃ রকি আমাকে ১ হাজার ৫’শ টাকা ঘুষ দাবি করেন। আর টাকা পেলে তিনি তাৎক্ষনিক ছবি তোলার ব্যবস্থা করে দিবেন। যদি ঘুষের ১ হাজার ৫’শ টাকা না দেয়া হয়, তাহলে আমাকে আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে যোগাযোগ করতে হবে।
তিনি আরো বলেন, বিনোদপুর ইউনিয়নের কালিগঞ্জ এলাকার মোঃ নয়ন আলী রাজিব নামে একজন আমার সামনে তাঁর নাম সংশোধনের জন্য অফিসে আসলে তাঁর কাছ এক প্যাকেট ব্যানসন সিগারেট গ্রহণ করে এই মোঃ রকি। রকি’র ঘুষ বাণিজ্যের বিষয়টি উপজেলা নির্বাচন অফিসারকে জানালে তিনি আমাকে একটা সাদা কাগজ ধরিয়ে দিয়ে আবেদন করতে বলেন। কিন্তু আমি নির্বাচন অফিসারের প্রতি আস্থা না পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে অভিযোগ দিলে তিনি তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করে আমাকে নতুন ভোটার হতে সার্বিক সহযোগিতা করেন। সেই ইউএনও স্যারের প্রতি শ্রদ্ধা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি।
এব্যাপারে উপজেলা নির্বাচন অফিসের কর্মকর্তা মোঃ তাসিনুর রহমান বলেন, মোঃ রকি কে আমি ব্যক্তিগত ভাবে আউটসোর্সিং পরিচ্ছন্ন কর্মী হিসেবে নিয়োগ দিয়েছি। তাঁর কাজ অফিসের পরিস্কার পরিচ্ছন্ন করা।
তিনি আরো বলেন, একজন আমাকে মৌখিকভাবে অভিযোগ করলে আমি তাঁকে লিখিত অভিযোগ করতে বলি। কিন্তু তিনি আমার দপ্তরের অভিযোগ আমাকে না দিলে, আমি এটা গ্রহণ করবো না। আমাকে আমার দপ্তরের অভিযোগ না দিয়ে তিনি উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে অভিযোগ দিয়েছেন। আমার দপ্তরে আমি প্রধান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আমার দপ্তরের প্রধান নয়। আমার দপ্তরের অভিযোগ আমাকে দিতে হবে এবং ইউএনও কে অনুলিপি দিবে এটাই হচ্ছে নিয়ম।
এদিকে, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আবুল হায়াত জানান, নির্বাচন অফিসের রকি’র বিরুদ্ধে আবু সায়েম নামে একজন আমার কাছে লিখিত অভিযোগ করলে আমি তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা গ্রহন করি। রকি কে আমার অফিসে ডেকে ভুক্তভোগীর কাছে ভুল স্বীকার ও ক্ষমা চাইতে বলি এবং নির্বাচন অফিসারকে তাৎক্ষনিক অভিযোগকারীর কাজ করে দিতে বলি। এছাড়া নির্বাচন অফিসারকে সতর্ক বার্তা দেয়া হয়। তিনি আরো জানান, শুধু নির্বাচন অফিস নয়, উপজেলার যে সব অফিসে এই ধরনের অনিয়ম পাওয়া যাবে আমি তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। আমি উপজেলাকে অনিয়ম, দূর্ণীতি আর ঘুষ বাণিজ্য মুক্ত করতে সব ধরনের আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ হবো।