“কিশোরগঞ্জে শিকলে বাধা মানসিক ভারসাম্যহীন মজিবার রহমানের জীবন”


প্রকাশের সময় : অক্টোবর ২৩, ২০২২, ৬:৩২ অপরাহ্ন / ৫৯০
“কিশোরগঞ্জে শিকলে বাধা মানসিক ভারসাম্যহীন মজিবার রহমানের জীবন”
“কিশোরগঞ্জে শিকলে বাধা মানসিক ভারসাম্যহীন মজিবার রহমানের জীবন”
রতন কুমার রায়, ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি, কিশোরগঞ্জ, নীলফামারীঃ
দীর্ঘ তিন বছর ধরে খোলা আকাশের নিচে গাছের সঙ্গে শিকলে বাধা মানসিক ভারসাম্যহীন এক বৃদ্ধা মজিবর রহমান (৬৫) এর জীবন। তার বাড়ী নীলফামারী জেলার কিশোরগঞ্জ উপজেলার পুঁটিমারী ইউনিয়নের ফরুয়া পাড়া গ্রামে। তার এক কন্যা সন্তান রয়েছে অনেক আগে তাকে বিয়ে দিয়েছেন। মজিবার রহমানের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, জীবিকার তাগিদে কৃষি কাজ করার জন্য কুমিল্লা যাওয়ার পথে সড়ক দূর্ঘটনায় মাথা ফেটে যায় তার। বাড়ীতে ফিরে এসে স্থানীয় ডাক্তার দ্বারা চিকিৎসা নেন। কিন্তু মাথার ক্ষত সেরে যাওয়ার পর মানষিক ভারসাম্যহীন হয়ে পড়েন। এক পর্যায় মানষিক ভারসাম্যহীন মজিবার রহমান মানুষকে মারধর সহ মানুষের শুকানো কাপড় মাটিতে ফেলে দেওয়ার অপরাধে দীর্ঘ তিন বছর ধরে লোহার শিকলে গাছের সঙ্গে বেধে রেখেছে তাকে । ফলে খোলা আকাশের নিচে মানবেতর জীবন-যাপন করছে মজিবর রহমান। স্ত্রী আনিছা বেগম (৬২) কষ্টের সামন্য আয়ের মধ্য দিয়ে চলে তাদের জীবন সংসার।

স্ত্রী আনিছা বেগম জানান কাজ করি খাই বাবা, হাতে করি পেটে দেই,আলু নেলাই, ধানো কাটি, আলু তুলি,যখন যে কাজ আইসে সেই কাজ করি। হামাক দেখার কেউ নেই বাবা। স্ত্রী আনিছা বেগমের দাবী উন্নত চিকিৎসা পেলে মজিবর রহমান পুর্বের নেয় ভাল হয়ে ওঠবে। কিন্তু দরিদ্র ২ বেলার উপোষী পরিবারটিকে এমন সময় না খেয়েও থাকতে হয় তাদেরকে। এমনিতেই নুন আনতে পান্তা ফুরায় অবস্থা সংসারে, উন্নত চিকিৎসা করবে কি দিয়ে। তাই স্ত্রী আনিছা বেগমের আকুতি সমাজের উচ্চবৃত্ত ধর্ণাঢ্য ব্যক্তিদের সাহায্য-সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়ে এগিয়ে আসার আহবান জানান। তাদের দেওয়া আর্থিক সাহায্য-সহযোগিতায় মুক্তি পেতে পারেন শিকলে বাধা মানষিক ভারসাম্যহীন মজিবার রহমানের জীবন।

রতন কুমার রায়

প্রতিনিধি

কিশোরগঞ্জ, নীলফামারী

০১৭৬৪৭৬৩১৬১