বগুড়ায় তিন উপজেলায় ১৮৬টি ঘর প্রদান, জেলাকে ভূমি ও গৃহহীনমুক্ত ঘোষণা


প্রকাশের সময় : জুন ১১, ২০২৪, ৭:৫১ অপরাহ্ন / ৬৬
বগুড়ায় তিন উপজেলায় ১৮৬টি ঘর প্রদান, জেলাকে ভূমি ও গৃহহীনমুক্ত ঘোষণা

রাশেদ, বিশেষ প্রতিনিধিঃ
বগুড়ায় তিন উপজেলায় ১৮৬টি ভূমি ও গৃহহীন পরিবারের মাঝে আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর প্রদানের মাধ্যমে বগুড়া জেলাকে ভূমি ও গৃহহীনমুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে।
মঙ্গলবার (১১ জুন) বেলা ১১টায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে ঘর ও জমির দলিল হস্তান্তর করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
এসময় বগুড়ায় তিন উপজেলায় ১৮৬টি ভূমি ও গৃহহীন পরিবারকে জমির দলিলসহ ঘরের চাবি প্রদান করা হয়৷ এর মধ্যে সারিয়াকান্দিতে ১০টি, শেরপুরে ৪৫টি ও সদর উপজেলায় ১৩১টি।
বগুড়া সদরঃ বগুড়া সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফিরোজা পারভীনের সভাপতিত্বে ঘর হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক মোঃ সাইফুল ইসলাম বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে বগুড়া সদরে জরাজীর্ণ ব্যারাক প্রতিস্থাপন করে একক গৃহ নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় সদর উপজেলায় ১৩১টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মাঝে গৃহের চাবি ও দলিল হস্তান্তর করা হলো। দেশে একটি মানুষও গৃহহীন থাকবে না। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা বাস্তবায়নে প্রতিটি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে ২ শতাংশ করে খাস জমিসহ গৃহ উপহার দিয়েছেন। এরই মধ্য দিয়ে বগুড়া জেলা এখন ভূমিহীন ও গৃহহীনমুক্ত।
উপস্থিত ছিলেন সিভিল সার্জন ডাঃ মোহাম্মদ শফিউল আজম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার স্নিগ্ধ আকতার, সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) রাকিব হাসান চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ জেলার সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা রুহুল আমিন বাবলু।
সারিয়াকান্দিঃ বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলা পরিষদ হলরুমে ভূমিহীন এবং গৃহহীনদেন জন্য ভূমি এবং গৃহ হস্তান্তর অনুষ্ঠানে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ তৌহিদুর রহমান এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান মোহাম্মেদ সাখাওয়াত হোসেন সজল।
আরও উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আব্দুল হালিম, সমাজসেবা কর্মকর্তা আব্দুল আলিম, ভাইস চেয়ারম্যান লিখন মিয়া, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কুলসুমা পারভীন শাপলা প্রমুখ।
শেরপুরঃ বগুড়ার শেরপুরে ৪৫টি ভূমি ও গৃহহীন পরিবারকে ঘরের চাবি ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র হস্তান্তর করার মাধ্যমে শেরপুর উপজেলাকে ভূমি ও গৃহহীনমুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী বিভাগীয় অতিরিক্ত কমিশনার (রাজস্ব) ইমতিয়াজ হোসেন, উপজেলা চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) শাহজামাল সিরাজী, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সুমন জিহাদী, উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) এসএম রেজাউল করিম, উপজেলা স্বাস্থ্য পরিবার ও পরিকল্পনা কর্মকর্তা সাজিদ হাসান সিদ্দিকী, শেরপুর থানার ওসি রেজাউল করিম, মুক্তিযোদ্ধা কেএম ওবায়দুর রহমান।
উল্লেখ্য, এর আগে ১ম, ২য়, ৩য় ও ৪র্থ ধাপে জেলায় ৫ হাজার ৫টি পরিবারকে ঘর হস্তান্তর করা হয়েছিল। ৫ম পর্যায়ের ২য় ধাপে ১৮৬টি ঘর হস্তান্তরের মধ্যদিয়ে জেলায় মোট ৫ হাজার ১৯১টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবার পেলো প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহারের স্বপ্নের ঠিকানা।